Kolome71

শেষ ওভারে বাজে বোলিং করায় মুস্তাফিজকে নিয়ে অবিশ্বাস্য ভাবে যা বললেন অধিনায়ক রুতুরাজ

আজ আইপিএলে দিনের একমাত্র ম্যাচে মুখোমুখি হয় চেন্নাই সুপার কিংস ও লাখনৌ সুপার জায়েন্টস। টস জিতে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় লাখনৌ সুপার জায়েন্টসের অধিনায়ক লোকেশ রাহুল। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে অধিনায়ক রুতুরাজ গায়কওয়াড় সেঞ্চুরিতে নির্ধারীত ২০ ওভারে ৪ উইকেটের ২১০ রান স্কোর বোর্ডে জমা করে চেন্নাই সুপার কিংস। ৬০ বলে ১০৮ রানের দুর্দান্ত একটা ইনিংস উপহার দেন তিনি। ১২টি চার ও তিন ছক্কার আসে তার ব্যাট থেকে।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই দুই উইকেট হারালেও মার্ক স্টোনিয়াসের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে ৪ উইকেটে জয়ের বন্দরে পৌছে যায় লাখনৌ সুপার জায়েন্টস। ৩ বলে হাতে রেখে ৬ উইকেটের বিশাল জয় তুলে নিয়েছে লোকেশ রাহুলরা। ৬৩ কলে ১২৪ রান করেন মার্ক স্টোনিয়াস। ১৩টি চার ও ছয়টি ছক্কার মার আসে তার ব্যাট থেকে।

এই ম্যাচে মোটেও ভালো বল করতে পারেনি চেন্নাই সুপার কিংসের বোলাররা। শার্দুল ঠাকুর ৩ ওভার বল করে দিয়েছেন ৪২ রান। ‍মুস্তাফিজ ৩.৩ ওভার বল করে দিয়েছেন ৫১ রান। পেয়েছেন মাত্র এক উইকেট। মাথিশ পাথিরানা ৪ ওভার বল করে দিয়েছেন ৩৫ রান। ২ উইকেট শিকার করেছেন তিনি। তবে ম্যাচে শেষ নিজেদের ব্যাটিংকে ও শিশির ম্যাচ হারার কারণ হিসেবে দায়ি করেছেন অধিনায়ক রুতুরাজ গায়কওয়াড়।

তিনি বলেন, “এটা ক্রিকেটের একটা অংশ। ব্যাক এন্ডে ভালো প্রত্যাবর্তন করেছে লখনউ। ১৩-১৪ ওভার পর্যন্ত ম্যাচটি আমাদের নিয়ন্ত্রণে ছিল। কিন্তু প্রচুর শিশির থাকায় আমরা আমাদের স্পিনারদের খেলায় আনতে পারিনি। তবে টুর্নামেন্টে আমাদের এখনও অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে। প্রথমে ব্যাট করে আমরা এর চেয়ে বড় স্কোর আশা করতে পারিনি। আমি ব্যক্তিগতভাবে অনুভব করেছি সুযোগ থাকা সত্ত্বেও আমরা যথেষ্ট স্কোর করতে পারিনি।”

মুস্তাফিজের এমন বাজে বোলিং মেনে নিতে পারছেন না চেন্নাইয়ের অধিনায়ক রুতুরাজ গায়কোয়াড়। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, “আমরা ১৪ ওভার পর্যন্ত ভাল করে জয়ের পাল্লা আমাদের দিকে রেখেছিলাম। মাঠে প্রচুর শিশির পড়ায় আমরা বোলারদের ঠিক মত কাজে লাগাতে পারিনি। তার (মুস্তাফিজের) নো বলটা না হলেও হয় তো আমরা শেষ পর্যন্ত লড়াই করতে পারতাম। যাইহোক এইটা খেলারই একটা অংশ”


Posted

in

by

Tags:

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *