Kolome71

পাকিস্তানের জার্সিতে ৪১টি টেস্ট খেলা সাবেক অধিনায়ক আর নেই

মারা গেলেন পাকিস্তানের সাবেক টেস্ট অধিনায়ক সাঈদ আহমেদ। বুধবার (২০ মার্চ) দুপুরে অসুস্থবোধ করলে হাসপাতালে নেয়া হয় তাকে। পরে সেখানেই মৃত্যু হয় তার। মৃত্যুকালে ৮৬ বছর বয়স হয়েছিল এ ক্রিকেটারের। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) বরাত ক্রিকেটবিষয়ক সংবাদমাধ্যম ক্রিক ইনফো এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

এ ক্রিকেটার ১৯৫৮ সাল থেকে ১৯৭৩ সালের মধ্যে নিজ দেশ পাকিস্তানের হয়ে ৪১টি টেস্ট খেলেছেন। ১৯৬৯ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হানিফ মোহাম্মদের জায়গায় পাকিস্তানকে তিন ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন। আর ক্যারিয়ারে ৫টি সেঞ্চুরিসহ রান সংগ্রহ করেছেন ২ হাজার ৯৯১ এবং অফ স্পিনে উইকেট নিয়েছেন ২২টি।

এ ক্রিকেটারের মৃত্যুতে পিসিবির চেয়ারম্যান মহসিন নকভি শোক প্রকাশ করে বলেছেন, আমাদের সাবেক টেস্ট অধিনায়ক সাঈদ আহমেদের মৃত্যুতে শোকাহত পিসিবি। তার পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। তার রেকর্ড ও দায়িত্বকে সবসময় সম্মান জানায় পিসিবি টেস্ট দল।

১৯৩৭ সালে তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের জালহান্দারে (ভারতের পাঞ্জাব) সাঈদ আহমেদের জন্ম। মাত্র ২০ বছর বয়সে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট ডেবিউ হয় তার। ব্রিজটাউনে সেই টেস্টে তৃতীয় উইকেটে হানিফের সঙ্গে ১৫৪ রানের জুটি গড়েন তিনি। এতে নিজে সংগ্রহ করেন ৬৫ রান।

পাকিস্তানি এ ক্রিকেটার ওই সফরে রয় গিলক্রিস্ট, গ্যারি সোবার্স, ল্যান্স গিবসের মতো বোলারদের নিয়ে গড়া দলের বিপক্ষে ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরি করেন। নিজ ব্যাটে ১৫০ রান সংগ্রহ করেন।

সাঈদ আহমেদ তার ক্যারিয়ারে পাঁচটি সেঞ্চুরি করলেও এসবের একটিতেও জয় লাভ করতে পারেনি পাকিস্তান। সেই সময় অবশ্য পাকিস্তানের টেস্ট ক্রিকেট খুব ভালোও ছিল না।

এ খেলোয়াড়ের ক্যারিয়ার অনেকটা বিতর্কের মুখে শেষ হয়েছিল। ১৯৭২ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরে যায় পাকিস্তান ক্রিকেট দল। সফরে গিয়ে ডেনিস লিলির সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পড়েন সাঈদ আহমেদ। এরপরই তৃতীয় টেস্ট থেকে সরে যান তিনি।

টেস্ট থেকে সরে যাওয়ার জন্য কারণ হিসেবে পিঠে চোটের কথা জানিয়েছিলেন। তারপর আর কখনো ক্রিকেটে দেখা যায়নি তাকে। এমনকি ক্রিকেট সংশ্লিস্ট কিছুতে যুক্তও হননি সাঈদ আহমেদ।


Posted

in

by

Tags:

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *