Kolome71

৯ ওভারে ১০৪ রান দিয়ে লজ্জার রেকর্ড গড়লো বাংলাদেশি পেসার

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে শেষ হওয়া অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের নিয়মিত সদস্য ছিলেন পেসার ইকবাল হোসেন ইমন। সেই আসরে বল হাতে দলের অন্যতম সেরা পারফর্মারও ছিলেন এই যুবা পেসার। এতে করে প্রথমবারের মতো ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে (ডিপিএল) তার খেলার সুযোগ মেলে।

আর স্বীকৃত ক্রিকেটে প্রথম ম্যাচে খেলতে নেমে অনাকাঙ্ক্ষিত এক রেকর্ডে উঠে গেল ইকবাল হোসেনের নাম। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে বাংলাদেশের হয়ে এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি রান দেয়ার রেকর্ড গড়েছেন ১৭ বছর বয়সী এই পেসার।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলি স্টেডিয়ামে গাজী টায়ার্স ক্রিকেট একাডেমির হয়ে আবাহনী লিমিটেডের বিপক্ষে ৯ ওভারে বল করে দিয়েছেন ১০৪ রান। যা বাংলাদেশি কোনো বোলারের সবচেয়ে বেশি রান দেয়ার রেকর্ড। যদিও ২টি উইকেট পেয়েছেন ইমন।

এই সংস্করণে এতোদিন বাংলাদেশি বোলারদের মধ্যে খরুচে বোলিংয়ের রেকর্ড ছিল পেসার শাহাদাত হোসেনের। তিনি ২০১১ সালে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা ‘এ’ দলের বিপক্ষে ১০ ওভারে ১০৪ রান দিয়েছিলেন। এক দশকেরও বেশি সময় পর এক ওভার কম বোলিং করেই শাহাদাতের রেকর্ড ছুঁলেন ইমন।

অবশ্য লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে এক ম্যাচে সবচেয়ে খরুচে বোলিংয়ে বিশ্ব রেকর্ডটি নেদারল্যান্ডসের পেসার বাস ডি লিডের। গত বছর বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১১৫ রান দেন নেদারল্যান্ডসের এই পেসার।

তবে নিজের অভিষেক ম্যাচের শুরুটা দুর্দান্ত করেন ১৭ বছরের ইকবাল। নিজের প্রথম ওভারেই মোহাম্মদ নাঈম শেখকে ফিরিয়ে পান প্রথম উইকেটের স্বাদ। পরে ৭৩ রান করা মাহমুদুল হাসান জয়কেও ফেরান তরুণ এই পেসার। কিন্তু শেষ দিকে এলোমেলো হয়ে যায় সব। প্রথম ৬ ওভারে ৫২ রান দেয়া ইকবাল পরের ৩ ওভারেই দিয়ে বসেন ৫২ রান। ৪৯তম ওভারে ৩ ছক্কা ও ১ চারে তিনি দেন ২৫ রান।

তার ওপর সবচেয়ে বেশি আগ্রাসী ছিলেন জাকের আলী। তিনি ৩ চার ও ৫ ছক্কায় ১৯ বলে ৪৬ রান তোলেন। আবাহনীর ওপেনার সাব্বির হোসেন ৮ বলে ৬ চারে নেন ২৪ রান। সব মিলিয়ে ১১টি চারের সঙ্গে ৫টি ছক্কা হজম করেন ইকবাল।


Posted

in

by

Tags:

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *