Kolome71

৪১ বছর বয়সে নতুন ইতিহাস গড়লেন অ্যান্ডারসন

ধর্মশালা টেস্টের তৃতীয় দিনে অনন্য এক মাইলফলক ছুঁয়েছেন জেমস অ্যান্ডারসন। ভারতীয় ব্যাটার কুলদীপ যাদবকে বেন ফোকসের ক্যাচ বানিয়ে ৭০০ উইকেটের মালিক হয়েছেন এই পেসার। টেস্ট ক্রিকেটের তৃতীয় বোলার হিসেবে এই কীর্তি গড়েছেন অ্যান্ডারসন।

৭০০ উইকেটের মাইলফলক ছুঁতে ধর্মশালায় ২ উইকেট দরকার ছিল ৪১ বছর বয়সী অ্যান্ডারসনের। শুভমান গিলকে বোল্ড করে ৬৯৯তম উইকেটটা নিয়েছিলেন ম্যাচের দ্বিতীয় দিন। শনিবার (৯ মার্চ) কুলদীপকে ফিরিয়ে পূর্ণ করলেন ৭০০তম উইকেট। আর তাতে টেস্ট ক্রিকেটের দীর্ঘ ইতিহাসে প্রথম পেসার হিসেবে ৭০০ উইকেটের মাইলফলক ছুঁলেন তিনি।

অ্যান্ডারসনের আগে ৭০০ উইকেটের কীর্তি গড়েছিলেন কেবল দুইজন- শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি মুত্তিয়া মুরালিধরন এবং লেগ স্পিনের জাদুকর শেন ওয়ার্ন। ১৩৩ টেস্টে ৮০০ উইকেট নিয়ে টেস্ট ক্রিকেটের সর্বকালের সেরা মুরালিধরন। প্রয়াত শেন ওয়ার্ন ১৪৫ টেস্টে নিয়েছেন ৭০৮ উইকেট।

সাদা পোশাকে ৭০০ উইকেট নিতে অ্যান্ডারসনের লেগেছে ১৮৭টি ম্যাচ। পেসারদের মধ্যে তিনিই প্রথম ছুঁলেন এই মাইলফলক। তার সাবেক সতীর্থ স্টুয়ার্ট ব্রডের আছে ৬০৪টি উইকেট। এই দুজন ছাড়া পেসারদের মধ্যে কারও ৬০০ উইকেটের বেশি নেই।

আর মাত্র ৯ উইকেট পেলে অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি লেগ স্পিনার ওয়ার্নকে ছাড়িয়ে টেস্টের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি হবেন অ্যান্ডারসন। সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় তার পরে আছেন ভারতীয় কিংবদন্তি স্পিনার অনিল কুম্বলে। ১৩২ টেস্টে ৬১৯ উইকেট নিয়েছেন তিনি। টেস্টে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি উইকেট সাকিব আল হাসানের। ১১১ ম্যাচে ২৩৩ উইকেট নিয়েছেন তিনি।

২০০৩ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে টেস্ট ক্রিকেটে পা রাখেন অ্যান্ডারসন। এরপর দীর্ঘ ২১ বছর ধরে এই ফরম্যাটে টানা খেলে আসছেন তিনি। ক্রিকেটের বাকি দুই ফরম্যাটে ২০১৫ সালের পর আর খেলেননি জিমি।


Posted

in

by

Tags:

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *