Kolome71

রমজানে ১৫০০ টাকার বাজার মাত্র ১০ টাকায়!

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির বাজারে সিলেটে মাত্র ১০ টাকায় মাছ, মুরগি ও তেলসহ ১০টি পণ্য ক্রয় করে খুশি নিম্নআয়ের দেড়শতাধিক মানুষ। ১০ টাকার একটি টোকেন দিয়ে ১৫০০ টাকার নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী ক্রয় করছেন তারা; এরপর হাসিমুখে বাড়ি ফিরছেন।

শনিবার (২ মার্চ) আসন্ন রমজানকে সামনে রেখে সিলেট নগরীর তেমুখীস্থ একটি কমিউনিটি সেন্টারে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এ আয়োজন করা হয়।

নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রীর মধ্যে ছিলো: চাল, ডাল, তেল, ছোলা, আটা, নুডলস, লবণ, চিনি, মাছ, মুরগি, খাতা-কলম। এখানে ১০ টাকায় নির্দিষ্ট ১৫টি পণ্যের মধ্যে ১০টি পণ্য ক্রয় করেন সুবিধাবঞ্চিত লোকজন। এরমধ্যে প্রতিটি পণ্যের মূল ধরা হয়েছে এক টাকা। তাই ১০ টাকায় ১০টি পণ্য কিনতে পেরে মহাখুশি দুস্থ ও অসহায় মানুষজন।

জানা গেছে, বর্তমান বাজারে যখন এক লিটার সয়াবিন তেলের দাম ১৮০ টাকা এখানে মাত্র এক টাকায় তেলে বিক্রি করা হয়। এক ডজন ডিমও এক টাকা, বড় একটি নুডলস পাওয়া যায় মাত্র এক টাকায়। এ ছাড়াও ২৫০ টাকার ব্রয়লার মুরগি এখানে পাওয়া যায় পাঁচ টাকায়। মূলত দুস্থদের পাশে দাঁড়ানোর উদ্দেশ্যে সারা বছরজুড়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে এই ধরনের বাজারের আয়োজন করা হয়। এ বছর ২০ হাজার পরিবারের মধ্যে এসব পণ্যসামগ্রী ১০ টাকার বিনিময়ে বিতরণ করা হবে।

১০ টাকার বাজারে এসে খুব খুশি সুবিধাবঞ্চিতরা। এতো কম দামে জিনিস পাওয়ার কথা চিন্তা করতে পারেননি তারা। রমজানে এই বাজার খুব কাজে দেবে বলে জানান সুবিধাবঞ্চিতরা।

বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবক রানা আহমেদ বলেন, সিলেটে ১৬০টি পরিবার মাত্র ১০ টাকায় যে পণ্যগুলো কিনেছেন। এর বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় ১২০০ থেকে ১৫০০ টাকা। সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পণ্য বাছাই করে নিজের ক্রয় করার স্বাধীনতা তৈরি করতে এ ধরনের আয়োজন করা হয়েছে। আর তারা যেন কোনোভাবেই মনে না করেন যে; এটি কোনো দান, এজন্য নামমাত্র মূল্য নেয়া হয়েছে।


Posted

in

by

Tags:

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *