ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা, পরিসংখ্যানে এগিয়ে যারা


বারবাডোজের কেনসিংটোন ওভালে আজ ‘চোকার্স’ তকমা মোছার লড়াই ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার। ভারতের নামের পাশে এই তকমা গত এক যুগ ধরে হলেও প্রোটিয়ারা নিজেদের ইতিহাসে কোনো বিশ্বকাপই জিততে পারেনি।

সবশেষ ২০১১ সালে বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। এরপর আইসিসির ৪টি ইভেন্টের ফাইনাল খেললেও খালি হাতেই ফিরতে হয়েছে টিম ইন্ডিয়াকে। ৪টি ফাইনালের মধ্যে ২টি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের, একটি ওয়ানডে বিশ্বকাপ ও একটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। শনিবার (২৯ জুন) আরেকটা ফাইনাল খেলতে নামছে ম্যান ইন ব্লুরা।

এবার কি অপয়াত্ব কাটাতে পারবে ভারত, না বিশ্বকাপ জিতে দক্ষিণ আফ্রিকা ইতিহাস গড়বে? কারা আজ ফেবারিট?

বারবাডোজের ফাইনালের আগে ফেবারিট বলা যাচ্ছে না কাউকেই। অতীতে তারা ২৬টি টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হয়েছে। যেখানে জয়-পরাজয়ের হিসাবে ভারত অল্প ব্যবধানে এগিয়ে। রোহিত শর্মা বাহিনীর ১৪ জয়ের বিপরীতে প্রোটিয়াদের জয় ১১টি। একটি ম্যাচে কোনো ফল হয়নি।

এই বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকাকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন এইডেন মারক্রাম। তার অধীনে আইসিসি ইভেন্টে কোনো ম্যাচ হারের নজির নেই প্রোটিয়াদের। এই বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ৮ ম্যাচের সব কটিতেই জিতেছে তারা। গত বছর ওয়ানডে বিশ্বকাপে ২ ম্যাচে দায়িত্ব পালন করে ২টিতেই জয় পান মারক্রাম। শুধু সিনিয়র দলেই না, আইসিসি ইভেন্টে জুনিয়র দলের অধিনায়ক হিসেবেও মারক্রাম কোনো ম্যাচ হারেননি। ২০১৪ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে তার নেতৃত্বে অপরাজিত দল হিসেবে শিরোপাই জিতেছিল প্রোটিয়ারা।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *