অস্ট্রেলিয়ার কাছে বড় ব্যবধানে হারের পর অবিশ্বাস্য ভাবে যা বললেন শান্ত


টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ১৭ বছর পর গ্রুপপর্ব পাড়ি দিয়ে সুপার এইটে উঠেছিল বাংলাদেশ। যেখানে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই আজ (শুক্রবার) অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরেছে টাইগাররা। এন্টিগায় টস হেরে ব্যাট করতে এদিনও নেমে শুরুটা ভালো হয়নি। মাঝে নাজমুল হোসেন শান্ত ও তাওহীদ হৃদয়দের প্রচেষ্টার পরও তাদের যে পুঁজি দাঁড়ায়, তা নিয়ে লড়াই করা ছিল কঠিন। ফলে বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে অজিরা ডিএলএস নিয়মে ২৮ রানে জিতেছে।

এদিন রানের খাতা খোলার আগেই বিদায় নেন ওপেনার তানজিদ হাসান তামিম। পরে দলের হয়ে হাল ধরেন লিটন দাস এবং নাজমুল হাসান শান্ত। তবে থিতু হয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি লিটন, শান্ত ফিরে যান ৪১ রান করে। শেষ দিকে তাওহীদ হৃদয়ের ৩৭ রানে ২০ ওভার শেষে বাংলাদেশ ১৪০ রান সংগ্রহ করে। মূলত অজি বোলারদের সামনে সুবিধাই করতে পারেনি টাইগার ব্যাটাররা।

জয়ের জন্য ব্যাট করতে নেমে ঝোড়ো শুরু করে অজি ওপেনাররা। মাঝে একাধিকবার বৃষ্টি হানা দেয়। শেষ পর্যন্ত বৃষ্টি আইনে ২৮ রানের জয় তুলে নেয় মিচেল মার্শের দল। বাংলাদেশ দলের হয়ে ২টি উইকেট শিকার করেছেন রিশাদ হোসেন। বড় হারের পর বাংলাদেশ অধিনায়ক শান্ত জানিয়েছেন, ‘উইকেট ভালো ছিল, কিন্তু স্লো–ও ছিল একটু। তবুও এই উইকেটে আমাদের অন্তত ১৭০ রান করা উচিৎ ছিল।’

ম্যাচটিতে রিশাদকে চার নম্বরে ব্যাটিংয়ে পাঠানো হয়েছিল। তবে এই পরিকল্পনা কাজে আসেনি মাত্র ২ রানেই আউট হওয়ায়। এ নিয়ে শান্ত বলেন, ‘আজ রিশাদ অজি স্পিনারদের মোকাবিলা করতে চারে এসেছিল। সে বিগ-হিটার, কিন্তু আজ সে রান করতে পারেনি। সবমিলে এখানে খেলা উপভোগ করছি এবং আমি মনে করি আরও কিছু করার সুযোগ আছে। দলের টপ-অর্ডার ব্যাটারের জন্য আজকের রান পাওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল।’

ছোট পুঁজি নিয়ে অজিদের শক্ত ব্যাটিং লাইনআপ সামলানো অসম্ভবের পর্যায়ে। তবে আগের ম্যাচগুলোর তুলনায় বলের লাইন লেংথ ঠিক ছিল না তাসকিন-মুস্তাফিজদের। বোলাররা সামনে ভালো করবে বলে আশা টাইগার অধিনায়কের, ‘আশা করি বোলাররা তাদের ফর্ম বজায় রাখবে। আমাদের পরের ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে ভালো খেলার চেষ্টা করব।’


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *