বধূ বেশে ইন্দোনেশিয়ার তরুণী জয়পুরহাটে


একটি স্পিকিং সাইটের মাধ্যমে ইন্দোনেশীয় তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে জয়পুরহাটের ছেলে শাকিউল ইসলামের (২৯)। পরে ইন্দোনেশিয়ায় গিয়ে ওই তরুণীকে বিয়ে করে দেশে ফেরেন তিনি।

মঙ্গলবার (১৮ জুন) বিকেল ৫টায় নব দম্পতি ক্ষেতলাল উপজেলার কুশুমশহর গ্রামে নিজ বাড়িতে ফেরেন।

জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার কুশুমশহর গ্রামের আমিনুর ইসলামের ছেলে শাকিউল ইসলাম(২৯)। শাকিউলের স্ত্রী তারাডা বার্লিয়াম মেগানন্দ(২৭) ইন্দোনেশিয়ার জাম্বী প্রদেশের পদজাদজারন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাষক হিসেবে কর্মরত আছেন।

জানা গেছে, মধ্যবিত্ত পরিবারের শাকিউল ইসলাম লেখাপড়া শেষে চাকরির উদ্দেশ্যে ঢাকায় যান। সেখানে প্রাইভেট কোম্পানির চাকরির পাশাপাশি  ইন্টারন্যাশনাল ভাষা শিক্ষা ফোরাম স্পিকিং ডট কম নামে একটি ওয়েব সাইডের মাধ্যমে তাদের পরিচয় ও প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। গত দুমাস আগে শাকিউল ইসলাম ঢাকা থেকে ইন্দোনেশিয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। ১০ জুন ওই দেশের মুসলিম আইন অনুযায়ী পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। এরপর মঙ্গলবার (১৮ জুন) বিকেল ৫টায় নব দম্পতি উপজেলার কুশুমশহর গ্রামে নিজ বাড়িতে ফেরেন। নব দম্পতিকে দেখার জন্য এলাকার উৎসুক জনতা ভিড় জমায়।

এ বিষয়ে শাকিউল ইসলাম বলেন, ‘ইন্টারন্যাশনাল ভাষা শিক্ষা ফোরাম স্পিকিং টুয়েন্টি ফোর ডট কম ওয়েব সাইডের মাধ্যমে দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে তার সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক। আমি তার দেশে গিয়ে ওই দেশের রেওয়াজ অনুসারে বিয়ে করেছি। আগামী বৃহস্পতিবার এদেশের রেওয়াজ অনুসারে বউ ভাত অনুষ্ঠান হবে।’


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *