আয়ারল্যান্ডকে হারিয়ে কানাডার ইতিহাস


আয়ারল্যান্ডকে হারিয়ে কানাডার ইতিহাস

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম ৮ আসরে কানাডা খেলার যোগ্যতাই অর্জন করতে পারেনি, এবারই প্রথম সুযোগ পেয়েছে তারা। প্রথম বিশ্বকাপের দ্বিতীয় ম্যাচেই জয় তুলে নিয়ে ইতিহাস লিখেছে দলটি। আয়ারল্যান্ডকে শুক্রবার (৭ জুন) ১২ রানে হারিয়েছে তারা।

নাসাউয়ের অদ্ভুতুড়ে পিচে কানাডার ১৩৭ রানের জবাবে ১২৫ রান করতে সক্ষম হয় পল স্টার্লিংয়ের দল। দুদলই নিজেদের ইনিংসে হারায় ৭টি করে উইকেট। ২ ম্যাচে এটা আয়ারল্যান্ডের দ্বিতীয় হার, আগের ম্যাচে ভারতের কাছে হেরেছিল তারা।

রান তাড়া করতে নেমে ৫৯ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ফেললে জয়ের আশা থমকে যায় আয়ারল্যান্ডের। ওই ৬ জনের মধ্যে অ্যান্ড্রু বালবার্নি ১৭ ও লরকান টাকার ১০ রান করেন। বাকিদের কেউ দুই অঙ্কের ঘর ছুতে পারেননি। সপ্তম উইকেটে হাল ধরেন জর্জ ডকরেল ও মার্ক অ্যাডায়ার। কিন্তু ততক্ষণে ম্যাচ থেকে কিছুটা ছিটকে যায় আইরিশরা।

ডকরেল ও অ্যাডায়ার আশা দেখাতে থাকেন আয়ারল্যান্ডকে। দুজনে মিলে গড়ে ফেলেন পঞ্চাশোর্ধ্ব রানের জুটিও। ফলে শেষ ১২ বলে তাদের দরকার পড়ে ২৮ রান। ১৯তম ওভারে ১১ রান নেয়া দলটি শেষ ওভারে আর লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারেনি। অ্যাডায়ারের উইকেট হারানোর পাশাপাশি ওই ওভারে মাত্র ৪ রান তুলে তারা।

আয়ারল্যান্ডের মতো কানাডার ইনিংসের শুরুতেও রান উঠছিল ধীরগতিতে। বেতাল পিচে যাচ্ছিল উইকেটও। সমালোচনা শুরু হওয়া নাসাউয়ে ৫৩ রানে কানাডা হারিয়ে বসে ৪ উইকেট। এরমধ্যে দুজন দশের ঘর পার হতে সক্ষম হন। পারগত সিং ১৮, অ্যারন জনসন ১৪, নাভনিত ধালিওয়াল ৬ ও দিলপ্রিত বাজওয়া ৭ রান করেন। পারগত ও জনসনের উইকেট নেন ক্রেগ ইয়ং। ধালিওয়ালকে মার্ক অ্যাডায়ার ও দিলপ্রিতকে গ্যারেথ ডেলানি সাজঘরে ফেরান।

৪ উইকেট চলে যাওয়ার পর যে বিপর্যয় আসে, তা সামাল দেন নিকোলাস কিরটন ও শ্রেয়াস মোভা। ১৬তম ওভারে ৫০ রানের জুটি হয় তাদের মধ্যে। ক্রেগ ইয়ংয়ের ওই ওভারে দুই ছক্কা ও এক চারে আসে ১৮ রান। তাতে ইনিংসের মোড়ও কিছুটা ঘুরাতে সক্ষম হয় কানাডা। ১৯তম ওভারে ভাঙে কিরটন ও মোভার জুটি।

হাফসেঞ্চুরি থেকে ১ রান দূরে থাকতে বেরি ম্যাককার্থির ওভারে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন কিরটন। তার ৩৫ বলের ইনিংসে আছে ৩টি চার ও ২টি ছয়ের মার। ৭ নম্বরে ব্যাট করতে নামা ডিলন হেইলিগার ২ বল খেলে কোনো রান না করেই কিরটনকে অনুসরণ করেন। শেষ ওভারের শেষ বলে মোভা আউট হলেও ৯ রান তুলে ফেলে আয়ারল্যান্ড। ৩৬ বলে মোভা করেন ৩৭ রান। আয়ারল্যান্ডের হয়ে ২টি করে উইকেট নেন ইয়ং ও ম্যাককার্থি। ১টি করে উইকেট পান অ্যাডায়ার ও ডেলানি।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *